মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৮:১৩ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
ঈশ্বরদীতে সাপের কামড়ে খামার শ্রমিকের মৃত্যু নাটোরের ওয়ালিয়ায় বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত দাশুড়িয়ায় বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সারাদেশের ন্যায় ঈশ্বরদীতেও বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত নাটোরের জোকাদহে ডিডিপির বাউল গানের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত পাবনা ডিবি পুলিশের সফল অভিযান বিপুল পরিমাণ অস্ত্রসহ হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তার ঈশ্বরদী নতুনহাট গোলচত্বরে ট্রাকচাপায় অটোরিকশার ৫ যাত্রী আহত Hello world ধর্ষণের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করা ছেলেটি নিজেই ধর্ষক অবশেষে শ্রীঘরে ধর্ষণের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করা ছেলেটির নিজেই ধর্ষক অবশেষে শ্রীঘরে

বিশ্বের বৃহত্তম চিনের নৌবাহিনী, পেন্টাগনের রিপোর্ট।

ডিডিপি নিউজ ২৪ ডেস্ক
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ঢাকা অফিস।।
চীনের হাতে এখন বিশ্বের বৃহত্তম নৌবাহিনী রয়েছে এবং তারা ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে বিভিন্ন কৌশলগত স্থানে লজিস্টিকাল ঘাঁটি স্থাপনের চেষ্টা করছে। পাশপাশি তারা আগামী এক দশকের মধ্যে পারমাণবিক অস্ত্রের সংখ্যা দ্বিগুণ করার পরিকল্পনা করছে। মঙ্গলবার মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগ পেন্টাগনের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে উপস্থাপিত এক বিশদ প্রতিবেদনে পেন্টাগন চীনের সামরিক শক্তির বৃদ্ধি সম্পর্কে তাদের সর্বশেষ মূল্যায়ন তুলে ধরে। সেখানে বলা হয়েছে, চীন তার পরমাণু অস্ত্র আধুনিকীকরন করছে এবং বাড়াচ্ছে। সেক্ষেত্রে আগামী এক দশকের মধ্যে চিনের পরমাণু ওয়ারহেডের সংখ্যা বর্তমান সংখ্যার চেয়ে অন্তত দ্বিগুণ হবে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের কাছে বর্তমানে ২০০’র কিছু কম পরমাণু অস্ত্র রয়েছে। আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে তারা আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের সংখ্যা অনেক বেশি বাড়াবে যা আমেরিকার জন্য উল্লেখযোগ্য মাত্রায় হুমকি হয়ে দেখা দেবে। এসব ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরমাণু ওয়ারহেড বহনে সক্ষম বলে প্রতিবেদনে দাবি করা হয়। চীন এরই মধ্যে জাহাজনির্মাণ, ভূমি-ভিত্তিক কনভেনশনাল ব্যালিস্টিক এবং ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ও সমন্বিত বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাসহ সামরিক সরঞ্জামাদি আধুনিকীকরণের ক্ষেত্রে আমেরিকার সমকক্ষ হয়েছে অথবা কোনো কোনো ক্ষেত্রে আমেরিকাকে ছাড়িয়ে গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এই রিপার্টে চীনের ক্ষমতাবৃদ্ধি নিয়ে বেশ কিছু সতর্কবাণী শোনা যায়। সেখানে চীনের নৌবাহিনীর শক্তি নিয়ে বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আনা হয়। রিপোর্টে বলা হয়েছে, এই মহ‚র্তে চিনের কাছে বিশ্বের বৃহত্তম নৌবাহিনী রয়েছে। যার মধ্যে ৩৫০ টি বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন যুদ্ধ জাহাজ এবং সাবমেরিনও রয়েছে। একইসাথে এই খাতে উত্তরোত্তর নিজেদের ক্ষমতা বৃদ্ধি করেই চলেছে বেইজিং। সেই দিক থেকে দেখলে বিশ্বের অন্যতম সামরিক শক্তিধর দেশ আমেরিকার কাছে এই মুহ‚র্তে মাত্র ২৯৩টি যুদ্ধ জাহাজ রয়েছে।

চীন এমনভাবে বিভিন্ন দেশে সামরিক সাজসজ্জা করছে যে মুহূর্তের মধ্যে বিশ্বের যে কোনও প্রান্ত থেকে তারা কোনও না কোনও রকমের হামলা করতে বা হামলা প্রতিহত করতে সক্ষম হবে। ভারতের একেবারে গা ঘেঁষে পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, মিয়ানমার তো বটেই, তা ছাড়াও থইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, ইন্দোনেশিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কেনিয়া, সেশেলস, তানজানিয়া, অ্যাঙ্গোলা, তাজিকিস্তানের মতো দেশগুলিতেও মিলিটারি লজিস্টিক্সের ঘাঁটি তৈরি করছে চীন।

নামিবিয়া, ভানাতু, সলোমন আইল্যান্ডের মতো ভালো স্ট্র্যাটেজিক লোকেশনে ইতিমধ্যেই চিন পরিকাঠামো গড়ে তুলেছে। আফ্রিকা ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলির উপর নিয়ন্ত্রণ আনতে মরিয়া চীন। তারা একদিকে এলাকা ঘিরছে, আবার সামরিক পরিকাঠামো গড়ে তুলছে দ্রুত। আফ্রিকার জিবুতিতে নিজেদের সেনা ঘাঁটি যে তৈরি হয়ে গিয়েছে সে কথা সরকারি ভাবে নিজেই জানিয়েছে তারা। সেই ঘাঁটি কেন্দ্র করে শাখা প্রশাখা তৈরি হয়ে যাবে আফ্রিকার অন্যান্য দেশে। ব্যাপারটা আমেরিকা তো বটেই, নিজের প্রতিবেশী দেশগুলোর দিকে তাকালে ভারতের কপালেও ভাঁজ পড়তে বাধ্য।

অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ অ্যাসোসিয়েশনের নিরস্ত্রীকরণ এবং ঝুঁকি হ্রাসকরণ বিভাগের মহাপরিচালক কিংস্টন রিফ পেন্টাগনের প্রতিবেদন সম্পর্কে জানিয়েছেন, এই প্রতিবেদনে চীনের পরমাণু অস্ত্র সম্পর্কে যা বলা হয়েছে তা যদি সত্য হয় তাহলেও রাশিয়া এবং আমেরিকা চীনের চেয়ে তখনও পরমাণু অস্ত্রের দিক দিয়ে অনেক বেশি ক্ষমতাধর থাকবে। তার মতে, চীনের পরমাণু অস্ত্র সম্পর্কে অতিমাত্রায় উদ্বেগ প্রকাশ করে যুক্তরাষ্ট্র অস্ত্র প্রতিযোগিতা থেকে সবার দৃষ্টি সরিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। সূত্র : টিওআই।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Copyright 2020 © All Right Reserved By DDP News24.Com

Developed By Sam IT BD

themesba-lates1749691102